গুগল এডসেন্স নামক সপ্ন ও একটি ব্লগ

ব্লগ গুলোতে স্বক্রীয় থাকার কারণে জিন্নাত উল হাসানকে আমরা সবাই কম বেশি চিনি।আমি আমার এই পোস্টে মূলত তার ব্লগ “সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন | ইন্টারনেটে আয়ের কৌশল | গুগল, এডসেন্স, এফিলিয়েট প্রোগ্রাম | ব্লগিং, ওয়ার্ডপ্রেস, ডোমেইন, হোস্টিং” নিয়ে একটি ছোটখাট আলচনা করব।প্রথমেই জিন্নাত উল হাসান সাহেবকে অভিনন্দন তার ব্লগের বর্ষপূতি উপলক্ষে।

আমার চোখে ভালো দিক গুলোঃ-

প্রথমে যে ব্যাপারটা চোখে পড়ার মত সেটা হল এই ব্লগটি পরিচালনা করার পিছনের উদ্দেশ্য।আমরা সবাই জানি বাংলাভাষার ব্লগ এবং সাউথ এশিয়ান ট্রাফিক টাকা উপার্জনের জন্য আসলে কোন কাজের না।তাহলে এত কষ্ট করে শত ব্যস্ততার মাঝেও কেনো উনি এই সাইটটি চালাচ্ছেন।পুরো ব্যাপারটার একটা নিজস্ব ব্যাখ্যা অবশ্য আমার কাছে আছে।সেটা হল “সাহায্য করার মানসিকতা”।খেয়াল করলে দেখা যাবে বাংলাদেশে ২০০৬ সালের পর থেকে হঠাৎ করেই ইন্টারনেট থেকে আয় তথা গুগল এডসেন্স থেকে আয় নিয়ে ব্যাপক আলোড়ন শুরু হয়।কিন্তু যথাযথ জ্ঞানের অভাবে ৯৯.৯৫% মানুষই গুগল এডসেন্স থেকে আয় করতে পারেননি।অনেকে আবার তথাকথিত বিভিন্ন গুগল এডসেন্স গুরুদের দ্বারা হয়েছেন প্রতারিত।আর আমার মনে হয় এই হতাশ মানুষগুলোর ইচ্ছা শক্তি আর ভালো কিছু করার উদ্যম থেকেই চালু হয়েছে হাসান সাহেবের এই গুগল এডসেন্স ব্লগ।সাধুবাদ জানাই তার কাজকে।

নাম করা অনেক ব্লগারই বলেন”Never do spoon feeding to your readers”।আমি নিজেও এই ব্যাপারটা বিশ্বাস করতাম।কিন্তু জিন্নাত উল হাসান সাহেবের ব্লগটা ঘুরে ঘুরে এই ব্যাপারটার একটু পরিবর্তন হয়েছে।এখন বিশ্বাস করি প্রয়োজনে একটু Spoon feeding আসলে খারাপ না।হাসান সাহেব যখন সামান্য গুগল এডসেন্স কোড নিয়ে আলোচনা করতেন তখন মাঝে মাঝে বিরক্ত হতাম।কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই পোস্ট কমেণ্ট পড়ে মনে হত আসলে উনি ঠিক কাজটিই করতেছেন।

হাসান সাহেবের ব্লগের আরেকটি লক্ষ্যনীয় বিষয় হল লেখক এবং পাঠকের সম্পর্ক।খুব কম ব্লগেই আমি দেখেছি যেখানে লেখক আর পাঠকের মাঝে এমন চমৎকার সম্পর্ক দেখা যায়।পাঠকরা যেমন প্রশ্ন করতে উৎসাহী হাসান সাহেবও উত্তর দিতে আগ্রহী।মাঝে মাঝে লক্ষ্য করি পাঠকরা নিজেরাও অন্য পাঠকদের সাহায্য করছে।

একটা কথা না বললেই নয়।সেটা হল, হাসান সাহেব যে এই ব্লগের মাধ্যমে শুধু শিক্ষাই দিচ্ছেন তা নয়।তার সবচেয়ে বড় উদ্যোগ আমার কাছে মনে হয়েছে তা হল ডোমেইন এবং হোষ্টিং এর একটি সমাধান তিনি দিয়েছেন।আমি জানি এটা কোন ব্যবসায়ীক মানসিকতা নিয়ে তিনি করেননি।এবং শতভাগ নিশ্চিত উনি এক পয়সাও কখনো লাভ করেননি বরং মাঝে মাঝে প্রচুর টাকা নিজের পকেট থেকে দিচ্ছেন।কখনো চিন্তা করে দেখেছেন ১৫০০-২০০০ টাকায় শূন্য ডাউনটাইম হোস্টিং এর কথা। Hats off to Hasan bhai.

ইতিমধ্যে হাসান সাহেবের অনেক পাঠক গুগল এডসেন্স থেকে সাফল্য পেতে শুরু করেছেন।তাদের জন্য শুভ কামনা।

কিছু অপূর্ণতাঃ-

আমার কাছে যে ব্যাপারটা মনে হয়েছে অপুর্ণ সেটা হল,হাসান সাহেব তার লেখা গুলো বিচ্ছিন্ন ভাবে প্রকাশ করেন।টিউটোরিয়াল ধরনের পোষ্টগুলো আরো বাড়ানো উচিৎ বলে আমি মনে করি।

আরেকটা ব্যাপার,বাংলাদেশের বেশীরভাগ ব্লগারদের সমস্যা হল কীওয়ার্ড গবেষণা।নির্দিষ্ট কিছু গন্ডির মাঝেই বেশীরভাগ ব্লগ।আমি আশা করব হাসান সাহেব তার ব্লগে কীওয়ার্ড গবেষণা নিয়ে আরো বিস্তারিত আলোচনা করবেন।আমি আমার সীমিত জ্ঞান দিয়ে যা বুঝি তা হল আপনি এফিলিয়েট মার্কেটিং করুন আর গুগল এডসেন্স নিয়ে কাজ করুন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজ হল সঠিক কীওয়ার্ডটি খুঁজে পাওয়া।

আমার ব্যক্তিগত পছন্দঃ-

গুগল এডসেন্স বা SEO পোষ্টগুলো থেকে বেশি পছন্দ অফটপিক গুলো।তাই আমি আরো বেশি বেশি অফটপিক চাই।

এই বছরের চাওয়াঃ-

বেশী বেশী পোষ্টতো চাই,সাথে সাথে আরো চাই গুগল এডসেন্স,এফিলিয়েট মার্কেটিং এর উপর ভিডিও টিউটোরিয়াল।

যেটুকু আলোচনা করলাম তার পুরোটুকুই আমার ব্যক্তিগত পর্যবেক্ষণ থেকে।হাসান সাহেবের পোষ্টের মান নিয়ে আলোচনা করার মত জ্ঞান আসলে আমার নেই।তবে এটুকু বলবো,আমি খুবই কম বাংলাদেশী ব্লগ নিয়মিত পড়ি যার মধ্যে একটি হল হাসান সাহেবের এই “সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন | ইন্টারনেটে আয়ের কৌশল | গুগল, এডসেন্স, এফিলিয়েট প্রোগ্রাম | ব্লগিং, ওয়ার্ডপ্রেস, ডোমেইন, হোস্টিং” বিষয়ক এই ব্লগটি।

শুভকামনা সকলের জন্য।

Advertisements

ট্যাগ সমুহঃ

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s


%d bloggers like this: